ArabicBengaliEnglishHindi

পরিবহন শ্রমিকদের কোভিট-১৯ ভেকসিন নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন–মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম শ্রাবণ


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০২২, ১১:২৯ অপরাহ্ন / ৯৯
পরিবহন শ্রমিকদের কোভিট-১৯ ভেকসিন নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন–মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম শ্রাবণ

এস এম জীবন ->>
বৈশ্বিক মহামারী সংক্রমণ রোধ কল্পে সরকারী নির্দেশনায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা এবং সমগ্র বাংলাদেশ টিকাদান কর্মসূচি বাস্তবায়নে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন তা প্রসংশনীয়। এখন ভ্যাকসিন নিতে সবাই ইচ্ছুক, আগ্রহের সাথে লাইনে দাঁড়িয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করছে, করোনার টিকা নিতে যে আগ্রহ ইতি পূর্বে ছিল না।

পরিবহন শ্রমিকেরা সবাই যেন ভ্যাকসিনের আওতায় আসতে পারে সে বিষয়ে মালিক পক্ষের সাথে আলোচনা চলছে। এছারাও পরিবহনের ইজারাদার হিসেবে, পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের নেত্রীবৃন্দদের সাথে নিয়ে আমরা পরিবহন শ্রমিক ও সাধারন যাত্রীদের মধ্যে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে মাক্স ব্যবহার,হাত স্যানিটাইজার করা, মূলত সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রতি নিয়ত মাইকিং করা হচ্ছে, একান্ত সাক্ষাৎকার কালে এসব কথা বলেন,গাবতলী টার্মিনালের ইজারাদার পরিচালক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম শ্রাবণ।

এছাড়াও ২১শে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের আলোচনা সভায় ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়েছেন গাবতলী টার্মিনালের ইজারাদার পরিচালক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম শ্রাবণ। অনুভূতি প্রকাশ পেয়েছে তার কথায়-

একুশ আমার অধিকার আদায়ের সাধনা, একুশ আমার প্রতিবাদী হওয়ার ঘোষণা। একুশ আমার মায়ের ভাষা রক্ষার সূচনা, একুশ আমার অন্যায়ের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠার উন্মাদনা।

একুশের চেতনা আমাদের আত্মমর্যাদাশীল করেছে। দুর্জয় সাহস জুগিয়েছে। ‘একুশ মানে মাথা নত না করা’- চিরকালের এ স্লোগান আজও সমহিমায় ভাস্বর। একুশ মানে অন্যায়ের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ, যাবতীয় গোঁড়ামি আর সংকীর্ণতার বিরুদ্ধে শুভবোধের অঙ্গীকার। ৫২-র ভাষা আন্দোলনেও এর কোনো ব্যতিক্রম ঘটেনি। মায়ের ভাষার অধিকার রক্ষার জন্য জীবন দিয়েছিল যেসব ভাষা শহীদ, তাদের ত্যাগই আমাদের এগিয়ে চলার অনুপ্রেরণা। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে সকল ভাষা শহীদের প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা।