ArabicBengaliEnglishHindi

কোম্পানীগঞ্জে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ওসি,এসপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানালেন মেয়র কাদের মির্জা


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১৬, ২০২২, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন / ১৩৯
কোম্পানীগঞ্জে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ওসি,এসপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানালেন মেয়র কাদের মির্জা

হাসানুর রশিদ ->>
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আজ মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ নেতা ফখরুল ইসলাম সবুজ এর ব্যক্তিগত উদ্যোগে কাদের মির্জা অনুসারী নবনির্বাচিত ৩ ইউপি চেয়ারম্যান ( আইয়ুব আলী, নাজিম উদ্দিন মিকন, মহিউদ্দিন সোহাগ) কে সংবর্ধনা ও ১টি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বসুরহাট পৌরসভার অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে বিকেল ৪:30 এ বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ছোট ভাই ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র কাদের মির্জা। বক্তব্যে সর্বপ্রথম ক্ষোভ প্রকাশ করেন নোয়াখালী জেলার পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে।

তিনি জানান নির্বাচনের আগের দিন রাত্রে স্বয়ং পুলিশ সুপার ফোন করে নিষেধ করে দেয়া হয় যাতে কাদের মির্জা বা তার কোন লোকজন নির্বাচনী কেন্দ্র পরিদর্শন না করেন। পুলিশ সুপার ওনাকে কথা দেন যে অপজিট পক্ষেরও কেউ কেন্দ্র পরিদর্শন বা কেন্দ্রে উপস্থিত থাকতে পারবে না। কিন্তু উনার দাবি ভোটের দিন উনারা কেউ কেন্দ্রে না গেলেও তার প্রতিপক্ষের লোকজন কাছে নির্বাচনী কেন্দ্রের দখল ছিল।

তিনি আরো বলেন ওসি সাজ্জাদ হোসেন কোম্পানীগঞ্জ একটি আতঙ্কের নাম তিনি যেই দিন থেকে কোম্পানীগঞ্জ থানায় যোগদান করেছে। সেই দিন থেকে অটোরিকশা চুরি ধুম পড়ে গেছে এভাবে চলতে পারে না। এর সাথে স্বয়ং পুলিশ জড়িত। তিনি আরো অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের বাইরের লোকজনের নিকট থেকে প্রশাসন টাকা নিয়ে ও দাওয়াত খেয়ে তাদের কে ভোটে জয় লাভের সুযোগ করে দিয়েছে।

পক্ষান্তরে গত ৭ ই ফেব্রুয়ারি কোম্পানীগঞ্জের ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়। নির্বাচনের আগে ভোটারদের মধ্যে অনেকটা আতংক বিরাজ করছিল। সেখানকার স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা দুই ভাগে বিভক্ত থাকায় ভোটারদের মধ্যে একটি আতঙ্ক ছিল যে, নির্বাচনের দিন কি ধরনের সহিংসতা হতে পারে।

কিন্তু নোয়াখালীর পুলিশ সুপার মোঃ শহীদুল ইসলাম কোম্পানীগঞ্জের ভোটারসহ নোয়াখালীর বাসিকে আশ্বস্ত করেন সম্পূর্ণ নিরপেক্ষভাবে এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের আয়োজন করা হবে। উনার নির্দেশ মোতাবেক নির্বাচনের দিন কোম্পানীগঞ্জকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে রাখা হয়। ভোটাররা সুস্থ ভাবে ভোট প্রদান করেন এবং সাধারন জনগনের মতামত কোম্পানীগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সুস্থ এবং স্বাভাবিক ভাবেই হয়েছে।

এরপর গত 10 ই ফেব্রুয়ারি সুবর্ণচর উপজেলা দুটি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় সেখানেও উৎসবমুখর ভোটাররা ভোট প্রদান করেন এবং নোয়াখালীর ইতিহাসে এই দুটি নির্বাচন মানুষ সব সময় মনে রাখবে। নির্বাচন-পরবর্তী নোয়াখালী পুলিশ সুপার মোঃ শহীদুল ইসলামকে সবাই অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এমন একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ ও উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য। এরকম সুষ্ঠু নির্বাচন জনগণ আগে দেখে নাই বলেই অনেকে মত প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন এর নিকট মতামত জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ের উপর কোন মতামত প্রকাশের অপারগতা প্রকাশ করেন।