ArabicBengaliEnglishHindi

কাজিপুরে আবাসিক এলাকায় অনুমোদনহীন প্লাস্টিক কারখানা


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ৩১, ২০২২, ৫:৫৩ অপরাহ্ন /
কাজিপুরে আবাসিক এলাকায় অনুমোদনহীন প্লাস্টিক কারখানা

আব্দুর রহিম, সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ->>

কাজিপুর উপজেলার চালিতাডাঙ্গা ইউপির ঘনবসতিপূর্ণ হাটশিরা বাজার সংলগ্ন আবাসিক এলাকায় অনুমোদনহীন প্লাস্টিক কারখানায় তৈরি হচ্ছে নিম্নমানের পিভিসি পাইপ। কাঁচামাল হিসেবে তারা ব্যবহার করছে স্থানীয় বাজারের ভাঙ্গারি দোকান থেকে সংগ্রহ করা প্লাস্টিকের বজ্র। স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে স্থানীয় কয়েক হাজার গ্ৰামবাসী।

কৃষক বন্ধু পিভিসি পাইপ ইন্ড্রাসটিজ নামে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ট্রেড লাইসেন্স সংগ্রহ করে স্থানীয় সাইফুলের পুত্র শাহিন আলম এ কারখানা পরিচালনা করছেন। ট্রেড লাইসেন্স ছারা প্রয়োজনীয় কোন অনুমোদন ও মান নিয়ন্ত্রন নেই স্বীকারোক্তি এবং স্থানীয় পর্যায়ে এ ধরনের কারখানা চালাতে সরকারি কোনো সংস্থার অনুমোদন লাগেনা দাবি করে তিনি জানান, প্রস্তুতকৃত বিভিন্ন মাপের পিভিসি এবং ইউপিভিসি পাইপ বগুড়া, নাটোর ও রাজশাহীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিপণন করা হয়। কারখানা শ্রমিক সুমন জানায় প্রতিদিন ৫ থেকে ৭ হাজার ফুট পাইপ তৈরি হয় এই কারখানায়। শ্রমিক নিরাপত্তা নেই।

স্থানীয় সমাজ সচেতন শিক্ষক আমিনুল ইসলাম জানান, আবাসিক ও ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় এধরনের উন্মুক্ত কারখানা পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ঝুঁকি হতে পারে।

স্থানীয়রা জানায়, ধুলা বালি ও প্লাস্টিকের দুর্গন্ধে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা না থাকায় যে কোনো সময় পুরো গ্ৰামসহ দুর্ঘটনার কবলে পড়তে পারে। প্রতিবেশী বাসিন্দারা জানান পরিবারের সদস্যদের শ্বাসকষ্ট জনিত রোগের প্রকোপ বেড়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোমেনা পারভীন পারুল জানান, প্লাস্টিকের কণা মিশ্রিত ধুলো, ময়লা থেকে চর্মরোগ, শ্বাসকষ্টসহ পাকস্থলী আক্রান্ত হতে পারে। এ বিষয়ে কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হাসান সিদ্দিকী বলেন নিয়মের ব্যত্যয় ঘটলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।