ArabicBengaliEnglishHindi

করোনার সাথে সখ্যতা


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ৭, ২০২২, ১০:১২ অপরাহ্ন / ১৫১
করোনার সাথে সখ্যতা

আবু জাফর বিশ্বাস –

দীর্ঘ প্রায় দুই বছর চলা করোনা মহামারীর সঙ্গে ধীরে ধীরে মানুষের মানিয়ে নেওয়ার বিষয়টি লক্ষণীয়। জীবনের তাগিদে অনেক মানুষ লকডাউন বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে কর্মব্যস্ততায় আত্মনিয়োগ করছে! বর্তমান ওমিক্রনের ভয়াবহতা বেড়েছে, তবে মানুষের সাহস ও আত্মবিশ্বাসও বেড়েছে, যেহেতু ইতোমধ্যে অনেকে করোনার দুই ডোজ টিকা নিতে পেরেছে। বর্তমান বুস্টার ডোজ নেয়ার কাজ চলছে। তবু এ পরিস্থিতিতে আমাদের প্রতিকূলতার মধ্যেও টিকে থাকার প্রয়াস চালাতে হবে এবং টিকা গ্রহণ করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নতুন ছন্দে জীবন সাজানোর দৃঢ়প্রত্যয়ে অগ্রসর হতে হবে। আমাদের দেশের নিম্নমধ্যবিত্ত মানুষ অসংখ্য জীবাণুর সাথে সংগ্রাম করে টিঁকে থেকে অলরেডী সমতুল্য জীবাণুকে জয় করে ফেলেছে। তাই করোনার সাথে সখ্যতা করে সয়ংক্রিয়ভাবেই অনেকটা প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে উঠেছে।

যাইহোক আমরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সাবধানতা অবলম্বন করবো। মুখে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করবো। আর রোদে মাঠে-ঘাটে সংসারের সাভাবিক সব কাজকর্ম করবো। সাম্প্রতিক গবেষণায় জানা গেছে যে, যাদের শরীরে ভিটামিন ‘ডি’ যথেষ্ট পরিমাণে থাকে তাদের করোনা হবার সম্ভাবনা খুব কম। আর এই ‘ডি’ বস্তুটি পর্যাপ্তই থাকে সূর্যরশ্মিতে যা কোনো ফুড সাপ্লিমেন্টে পাবেন না। তাই একটু রোদে পুড়ুন, ভোরের আবিরটুকু মাখুন। সকালে মাঠে-ঘাটে, ছাদে গিয়ে প্রাণ ভরে শ্বাস নিয়ে হার্ট সতেজ রাখুন। শুধু ফ্ল্যাট বাসায় বন্দি থাকবেন না। শহরের রেললাইনের পাড়ে বস্তিবাসীদের দেখুন, ঝুপড়িগুলোর অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে জন্মে মাটিতে গড়াগড়ি করে তারা বেড়ে উঠেছে, অসংখ্য জীবাণুর সাথে শৈশব থেকেই সংগ্রাম করে টিঁকে আছে তারা!

করোনার এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সবাই আরো সচেতন হোন, যথাযথ বিধিনিষেধ ও সাস্থ্য বিধি মেনে চলুন। তবে অযথা আতঙ্কিত হবেন না, শুধু কয়েকটি কথা মনে রাখুন। কোভিড রোগীর গায়ে হাত দিলেই তা ছড়ায় না, এটি একমাত্র তার হাঁচি, কাশি বা কথা বলার সময়েই লালার সূক্ষ্ম কণিকার মাধ্যমে ভাইরাস তার শরীর থেকে বেরোতে পারে। এবং তাও আপনার গায়ে লাগলে, পিঠে লাগলে, এমনকি তা খাবারের সঙ্গে আপনার পেটে গেলেও আপনি আক্রান্ত হবেন না। ভাইরাস একমাত্র আপনার শ্বাসনালীর মাধ্যমে ফুসফুসে গেলেই সংক্রমণ সম্ভব। তাই কোনো কোভিড রোগী মাথা ঘুরে পড়ে গেলে তাকে তুলতে গেলে আপনারও কোভিড হয়ে যাবে না। বিপদে পাশে থাকুন। তবেই আপনারও বিপদে মানুষকে পাশে পাবেন। শুধু মনে রাখবেন মুখে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করবেন, নাকে বা মুখে হাত দেবেন না। ভয় করলে কোভিড রোগীর সংস্পর্শে আসার পর হাত জীবাণু নাশক বা সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। খুব ভয় করলে পরনের পোশাক কেচে ফেলুন এবং স্নান করে নিন।

আর মানুষের পাশে দাঁড়ানোর থেকে কখনোই সরে আসবেন না। মনে রাখবেন তাদের বিপদের আপনি দাঁড়ালে একদিন আপনার বিপদেও তারা দাঁড়াবে। আর এটুকুতেই ভয় পাওয়ার আগে মনে রাখবেন ডাক্তার এবং নার্সরা হাজার হাজার কোভিড রোগীকে নিয়ে কাজ করছেন। তারা কিন্তু সবাই সংক্রমিত হয়ে যাচ্ছেন না। তাই আপনার প্রতিবেশী, বন্ধু, আত্মীয় বা পরিচিত কেউ আক্রান্ত হলে যতোটুকু সম্ভব সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন। এসময় আরো কিছু পদক্ষেপ নেওয়া যায়, সবাই এই যাত্রায় সামিল হয়ে; রোগি পরিবহনে এ্যাম্বুলেন্স ও অক্সিজেন সরবরাহ। এ ব্যাপারে সকলকে সমন্বিতভাবে উদ্যোগ গ্রহন করা এখন সময়ের দাবি। আবারও বলছি, সময়টা খুব কঠিন। মানুষ মানুষের জন্যে, জীবন জীবনের জন্যে। তাই নিজের যত্ন নিন। মানুষের পাশে থাকুন। সাবধানে থাকুন।